চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষার্থীকে থুথু খাওয়ানোর ঘটনায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। গত রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) উপজেলা ৫নং গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নের শ্রীকালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোশারফ তালুকদারের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে।

পরে বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ওই শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা জেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, শ্রীকালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোশারফ তালুকদার ৪র্থ শ্রেণির নিয়মিত ক্লাস নেন। ক্লাসের রুটিন অনুযায়ী বাড়ির কাজ জমা না দেওয়ায় শাসনের এক পর্যায়ে তাদের গাল চেপে ধরে মুখে থুথু খাইয়ে দেয়। ওই শিক্ষার্থীরা বাড়ি গিয়ে তাদের অভিভাবকদের ঘটনাটি জানালে তারা বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে জানায়।

প্রধান শিক্ষকের অনুরোধে অভিভাবকরা পরদিন বিদ্যালয়ে আসলেও ওই দিন অভিযুক্ত শিক্ষক মোশারফ হোসেন বিদ্যালয়ে আসেননি। এতে ক্ষোভের সৃষ্টি হয় অভিভাবকদের মধ্যে। তবে প্রধান শিক্ষক আ. হান্নান শিক্ষার্থীদের অভিভাকদের কাছে ওই শিক্ষকের পক্ষ হয়ে ক্ষমা চেয়েছেন বলে জানা যায়।

কয়েকজন অভিভাবক জানান, ৪র্থ শ্রেণীর ওই ৫ শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও অভিযুক্ত শিক্ষকের সামনেই ঘটনা বিস্তারিত বলেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক মোশারফ তালুকদার বলেন, বিষয়টি এমনটা রূপ নিবে ভাবতে পারিনি। তবে একটি পক্ষ আমার বিপক্ষে কাজ করছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ. হান্নান বলেন, ঘটনার দিন আমি বিদ্যালয়ের কাজে উপজেলায় ছিলাম। পরে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছে এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে শিক্ষকের পক্ষ হয়ে ক্ষমা চেয়েছি।

এ বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহাবউদ্দিন জানান, গত কিছুদিন পূর্বে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অন্য একটি ঘটনায় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here