ছবি তুলতে গিয়ে যমুনা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার ৩৫ ঘন্টা পর পাঁচ বছরের শিশু রাবেয়ার মরদেহ পেয়েছে পরিবার। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার বিকালে নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই নদীর তীরেই লাশের অপেক্ষায় ছিলেন পরিবারের সদস্যরা। আজ সকালে ৯টার দিকে বালুবাহী সেই ভলগেটের পাশে হঠাৎ করেই রাবেয়ার মরদেহ ভেসে উঠে। পরে, মরদেহটি উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে তার পরিবার। এ ঘটনায়, রাবেয়ার পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

উল্লেখ্য, টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়নের সিরাজকান্দি গ্রামের এরশাদ আলী ঈদ উপলক্ষে বুধবার বিকালে পরিবারের সবাইকে নিয়ে ল্যাংড়া বাজার এলাকায় যমুনা নদীর তীরে ঘুরতে যায়। এসময়, রাবেয়াকে বালুবাহী ভলগেটের উপর দাঁড় করিয়ে ছবি তুলতে গেলে সে নদীতে পড়ে যায়। স্রোত বেশি থাকায় পরিবারের সদস্যরা চেষ্টা করেও তার কোন খোঁজ পায়নি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধারের চেষ্টা চালালেও অতিরিক্ত বালুবাহী ভলগেট থাকায় প্রথম দফা উদ্ধার কাজ চালিয়ে ফিরে যায়। বৃহস্পতিবার পুনরায় দ্বিতীয় দিনের মতো উদ্ধার কাজ চালিয়েও ব্যর্থ হয় তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here