ধর্মীয় বিধান অনুযায়ী শনিবার দিনের বেলায় লেখা নিষেধ থাকায় আজ রাতে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা দেবেন ২৯ শিক্ষার্থী। তবে অন্যান্য শিক্ষার্থীদের ন্যায় তাদেরকেও সকালে নির্ধারিত পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে হয়েছে।

পরীক্ষায় অসদুপায় রোধ করতে সকাল ৯টায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হওয়ার পরও তারা নির্ধারিত হল থেকে বের হতে পারবেন না। সন্ধ্যা ৬টায় পরীক্ষায় অংশ নিয়ে রাত ৯টার দিকে পরীক্ষা শেষ করে তাদের কেন্দ্র ত্যাগ করতে হবে। সে হিসেবে তাদের পরীক্ষাকেন্দ্রে থাকতে হচ্ছে ১২ ঘণ্টা।

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলায় খ্রিষ্টধর্মের ‘সেভেন্থ ডে অ্যাডভেনটিস্ট’ সম্প্রদায়ের ওই শিক্ষার্থীরা আজ শনিবার রাতে এ বছরের এসএসসি পরীক্ষা দেবেন তারা।

তারা সবাই উপজেলা মুকসুদপুরের কেলগ মুখার্জী সেমিনারী উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। মুকসুদপুর উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজার আবদুল কাইয়ুম এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিন ঘণ্টার এ পরীক্ষা ঢাকা বোর্ডের অনুমতিক্রমে জলিরপাড় জেকেএমবি মল্লিক উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে সন্ধ্যা ছয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার আবদুল কাইয়ুম বলেন, ঢাকা বোর্ডের নির্দেশ মেনে আমরা এ বিষয়ে সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছি। পরীক্ষার স্বচ্ছতা নিশ্চিতের জন্য অন্য পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে ওই ২৯ জনকেও সকাল নয়টায় কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। রাত নয়টার পর পরীক্ষা শেষে তাদের বাইরে যেতে দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, চলতি বছরের এসএসসিতে ওই শিক্ষার্থীদের আগামী ২২ ফেব্রুয়ারির পরীক্ষাও রাতে নেওয়া হবে।

জানতে চাইলে জলিরপাড় জেকেএমবি মল্লিক উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র সচিব মিনতি বৈদ্য জানান, এ বছর ১৫ জন ছাত্র ও ১৪ জন ছাত্রী শনিবারের পরীক্ষাগুলো রাতে দেবে। তাদের ধর্মীয় বিধানের কারণে এ সুযোগ পাবেন তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here