সুন্দর আচরণ ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক ইসলামের শিক্ষা। কথা বলার সময় ভদ্রতা বজায় রাখা জরুরি। ভ্রু কুঁচকে কথা বলা, বিরক্তিভাব দেখানো এবং ক্ষোভ প্রকাশ কাম্য নয়। বরং হাসিমুখে কথা বলা-ই ইসলামের নির্দেশনা।

রাসুল (সা.) বলেন, ‘প্রতিটি ভালো কাজ সদকা। আর গুরুত্বপূর্ণ একটি ভালো কাজ হলো অন্য ভাইয়ের সঙ্গে হাসিমুখে সাক্ষাৎ করা।’ (তিরমিজি, হাদিস : ১৯৭০)

অন্য হাদিসে প্রিয় নবী (সা.) বলেন, ‘তোমার ভাইয়ের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় মুখে মুচকি হাসি নিয়ে আসাও একটি সদকা।’ (তিরমিজি, হাদিস : ১৯৫৬)

রাসুল (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি নিজের কোনো মুসলিম ভাইকে খুশি করার জন্য এমনভাবে সাক্ষাৎ করে, যেমনটি সে নিজের জন্য পছন্দ করে। কেয়ামতের দিন (বিনিময়ে) আল্লাহ তাআলা তাকে খুশি করবেন।’ (তাবারানি, হাদিস : ১১৭৮)

তাই মানুষের সাথে আমাদের তেমনভাবে কথা বলা উচিত, যেমনভাবে আমরা প্রত্যাশা করি। এমন কোনো আচরণ কাম্য নয়, যা আমরাও অন্যদের থেকে আশা করি না। সাক্ষাৎ ও কথাবার্তায় মার্জিত হলে আল্লাহ পুরস্কৃত করবেন। মানুষের সঙ্গেও সুসম্পর্ক বাড়বে। সমাজে অবদান রাখার সুযোগ সৃষ্টি হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here