রাজধানীর নয়াপল্টন এলাকায় বিএনপি কার্যালয় ঘিরে আজ সকাল থেকেই ছিল পুলিশের বাড়তি নিরাপত্তা। ঠিক দুপুর ১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত কার্যালয়ের সামনে ছিল সুনসান নীরবতা।

১টা ৫১ মিনিটে দলের কার্যালয়ের সামনে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুন্নবী খান সোহেল। তার সাথে এই সুযোগে আরও ৮-১০জন বিএনপি কর্মী এসে সামনে বসে পড়ে।

হুট করেই এরপর চতুর্দিক থেকে হঠাৎ মিছিল এসে জনসমুদ্র হয়ে যায় নয়াপল্টন। ‘জেলের তালা ভাঙবো, খালেদাকে আনবো’, স্লোগান দিতে থাকেন তারা।

হঠাৎ এত মানুষের আগমন দেখে এক পুলিশের প্রশ্ন, এত মানুষ এলো কীভাবে?

নেতাকর্মীদের সংখ্যা বাড়তে থাকলে নিরাপদ দূরত্বে সরে দাঁড়াতে দেখা যায় পুলিশ সদস্যদের।

বেলা দুপুর ২টার দিকে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে বিএনপি। সমাবেশে উপস্থিত রয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুন্নবী খান সোহেল, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, আফরোজা আব্বাসসহ নেতাকর্মীরা।

তবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ অন্য নেতারা কার্যালয়ের ভেতরেই অবস্থান করছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here