আজ (১৪ নভেম্বর) সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর নিয়ে ব্রিফিংয়ে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। সৌদি আরবে কর্মরত ২ লাখ ২০ হাজার নারীর মধ্যে ৫৩ জনের মরদেহ ফিরে এসেছে; যা খুবই নগণ্য বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সৌদি আরব থেকে নির্যাতিত হয়ে ফেরা নারীর সংখ্যা খুব বেশি নয় উল্লেখে করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাত্র ৮ হাজার নারী ফিরে এসেছেন যা খুবই নগন্য। নারীরা দূতাবাসের শেল্টারহোমে অভিযোগ না করে দেশে এসে অত্যাচারের কথা বলেন। যদি সংখ্যা দেখেন তাহলে খুবই ছোট একটা সংখ্যা। ৯৯ শতাংশ নারী ম্যানেজ করে নিয়েছেন, দেশে তারাও টাকাও পাঠাচ্ছেন। অনেকে আন্দোলন করছেন নারীদের যাওয়া বন্ধ করে দেয়া, নারী যাওয়া বন্ধ করে দেয়া, আমি জানি না, নারীরা এটাকে কীভাবে দেখবেন। তাদের কাজের জায়গা কমিয়ে দিচ্ছেন, যারা (এনজিও) দাবি করছেন তাদের চাকরি দেবেন না বিদেশে। তারা কি চাকরি জোগার করে দিবেন ওইসব নারীদের? দেশে থাকলে কি ভালো চাকরি হবে তাদের, এমন প্রশ্ন রাখেন মন্ত্রী।
বিদেশে নারী গৃহকর্মী পাঠানো বন্ধের বিষয়েও এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশে বিকাশমান অর্থনীতিতে পুরুষের পাশাপাশি অবদান রেখে চলেছেন বিপুল সংখ্যক নারী।

আগামী ১৬ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর নিয়ে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, বাংলাদেশে আমিরাতের ইকোনমিক জোন তৈরিসহ ৩টি বিষয়ে সমঝোতা স্মারক হবে এ সফরে। এছাড়া আগামী ২২ নভেম্বর ইডেনের টেস্ট ম্যাচে অতিথি হতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদি আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here