শিক্ষার্থীরা নিজেরাই হলে প্রবেশ করে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করছে: নুর

অনতিবিলম্বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি জানিয়ে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, ছাত্ররা যখন নিজেরাই হলে প্রবেশ করছে, তখন শিক্ষামন্ত্রী তড়িঘড়ি করে সংবাদ সম্মেলন করে সব পরীক্ষা বন্ধ করে দিয়েছেন। শিক্ষার্থীরা শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করছে। দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের অগ্রণী ব্যাংক গেটের অপরপাশে অনতিবিলম্বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের আয়োজিত বিক্ষোভে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

নুর বলেন, কাদের মির্জা ও আওয়ামী লীগের সার্কাসের রাজনীতির শিকার হয়ে একজন সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। আমরা এ ঘটনার প্রতিবাদে কর্মসূচি পালন করেছি। কিন্তু সাংবাদিক সংগঠনগুলো আজ কোথায়? নুর বলেন, গণমাধ্যম সঙ্কটময় সময় পার করছে। তারা স্বাধীন সাংবাদিকতা করতে পারছে না।

এ সময় ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন বলেন, বাংলার ছাত্রসমাজ শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করছে। সরকার মনে করেছে, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন তাদের জন্য হুমকির কারণ হতে পারে। যে কারণে চক্রান্তের নীলনকশা অনুযায়ী ক্যাম্পাস বন্ধ রাখা হচ্ছে। তিনি বলেন, এই সরকার কোনো কিছুকেই ভয় পায় না, তারা শুধু ছাত্র আন্দোলনকে ভয় পায়। ছাত্র আন্দোলন দমিয়ে রাখার জন্যই ক্যাম্পাস খুলে দেয়া হচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন, শুধু বিশ্ববিদ্যালয়গুলো চলছে না। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলছিল। হঠাৎ করেই তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here