শিক্ষার্থীদের অনশনে রাবি শিক্ষকের একাত্মতা; অন্য শিক্ষকের হুমকি!

বিভাগের নাম পরিবর্তনের দাবিতে অনশনরত শিক্ষার্থীদের সাথে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষক একাত্মতা প্রকাশ করায় অন্য আরেক শিক্ষক হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় পপুলেশন সায়েন্স অ্যান্ড হিউম্যান রিসোর্স বিভাগের শিক্ষার্থীদের অনশন চলাকালে অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. ফরিদ খান একাত্মতা প্রকাশ করে। এসময় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেক নূর অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং পা ভেঙ্গে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।

হুমকির বিষয়ে জানতে চাইলে ফরিদ খান বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের অনশনের ব্যাপারটি জেনে আমি তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করি। এমন সময় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেক নূর আমাকে ফোন দিয়ে উঠে যেতে বলে। আমি এরপরেও সেখানে অবস্থান করলে তিনি আমার দিকে মারার জন্য তেড়ে আসেন। এসময় তিনি আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন।’

হুমকির বিষয়ে জানতে চাইলে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেক নূর বলেন, ‘আমার এ বিষয়ে কোন মন্তব্য নেই।’ লাঞ্ছনার বিষয়ে জানতে চাইলেও তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক হুমায়ুন কবির। এ বিষয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের অনশন চলাকালীন আমরা পাশেই ছিলাম। হটাৎ করে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেক নূর তেড়ে যান অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফরিদ খানের দিকে। একজন শিক্ষক হিসেবে তাঁর এমন আচরণ করা উচিৎ হয়নি।

প্রসঙ্গত, দাবি আদায়ে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচিসহ পালন করে আসছেন বিভাগটির শিক্ষার্থীরা। তারপরেও দাবি আদায় না হওয়ায় পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী গতকাল বুধবার থেকে আমরন অনশন কর্মসূচি পালন করে বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here