বঙ্গবন্ধু বিপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে জয়ের জন্য ১৪৫ রানের লক্ষ্য দিয়েছে ঢাকা প্লাটুন। মিরপুরে শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে রায়াদ এমরিত ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের পরও শাদাব খানের দৃঢ়তায় নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৪৪ রান তোলে মাশরাফীর ঢাকা।

টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামা ঢাকাকে শুরু থেকেই চেপে ধরে চট্টগ্রামের বোলাররা। দলীয় ১৫ রানের মাথায় তামিমের (১০ বলে ৩) বিদায়ের পর থেকেই সাজঘরে ফেরার প্রতিযোগিতায় নামে ঢাকা। মুমিনুলের ৩১ রানের পরও মাত্র ৫২ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে ঢাকা।

মাহেদী হাসান ৭ রান করলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি তিন ব্যাটসম্যান—আনামুল হক বিজয়, লুইস রিচি ও জাকের আলী। দলীয় ৬০ রানের মাথায় ফিরে যান নাসুম আলী (৫)।

এরপরই ম্যাচে কিছুটা প্রাণ ফিরিয়ে আনেন থিসারা পেরেরা ও শাদাব খান জুটি। তাদের ৪৪ রানের জুটি ভাঙেন রুবেল হোসেন। ১৩ বলে ২৩ রান করে ফেরেন পেরেরা।

তবে শেষের দিকে ঢাকার ত্রাতা হয়ে দাঁড়ান শাদাব খান। তুলে নেন অর্ধশতক। তার ৬৪ রানের সুবাদে শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১৪৪ রান তোলে ঢাকা। শাদাবের ৪১ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিলো ৫টি চার ও ৩টি ছয়ের মারে।

চট্টগ্রামের সফলতম বোলার রায়াদ এমরিত ৪ ওভারে ২৩ রান খরচায় নেন ৩ উইকেট। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১১ রানে শিকার করেন দুই উইকেট। রুবেল হোসেন দুই উইকেট নিলেও ছিলেন বেশ খরুচে, দিয়েছেন ৩৩ রান।

কোয়ালিফায়ারের দৌড়ে টিকে থাকার জন্য চট্টগ্রামের দরকার ১৪৫ রান।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here