‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে সু চির পদত্যাগ করা উচিত ছিল’

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর সেনা অভিযানের প্রেক্ষিতে মিয়ানমারের নেত্রীর পদত্যাগ করা উচিত ছিল। বলেছেন জাতিসংঘের বিদায়ী মানবাধিকার প্রধান জেইদ রা’দ আল হুসেইন। খবর বিবিসির।

বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান বলেন, শান্তিতে নোবেলজয়ীর এই ইস্যু এড়িয়ে যাওয়াটা ‘গভীরভাবে দুঃখজনক’। গত সোমবার রোহিঙ্গাদের জাতিগতভাবে নির্মূল করার জন্য বর্বরতা চালানো হয়েছে তার ওপর প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘ। এর পরেই তিনি এই মন্তব্য করলেন।

প্রতিবেদনে গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তাদের বিচারের মুখোমুখি করার সুপারিশ করা হয়েছে। তবে মিয়ানমার তা প্রত্যাখ্যান করেছে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দাবি, তারা কোনো ধরনের অন্যায় করেনি।

হুসেইন বলেন, ‘সু চি কিছু একটা করার মতো অবস্থানে ছিলেন। তিনি চুপ থাকতে পারতেন বা এর চেয়ে ভালো, পদত্যাগ করতে পারতেন।

’তিনি আরও বলেন, ‘সু চির বার্মিজ সেনাবাহিনীর মুখপাত্র হওয়ার কোনো দরকার ছিল না। তিনি বলতে পারতেন, আমি দেশের নামমাত্র নেতা হয়েই থাকতে প্রস্তুত।’

এদিকে গতকাল বুধবার নোবেল কমিটি জানিয়েছে, ১৯৯১ সালে পাওয়া সু চির নোবেল পুরস্কার তারা প্রত্যাহার করবে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here