আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলার যাত্রাপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রিকেট উৎসবে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওপেনার এনামুল হক বিজয়।

শুভেচ্ছাবার্তা তুলে ধরা হলো, মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলার অন্তর্গত ইছামতি নদীর তীরে অবস্থিত অর্ধশতবর্ষ প্রাচীন যাত্রাপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়। আমি জেনে আনন্দিত হয়েছি যে, ঐতিহ্যবাহী এ বিদ্যালয়ের ছাত্ররা প্রায় তিন যুগেরও বেশি আগে থেকে ক্রিকেট খেলছেন। যার ধারাবাহিকতায় বর্তমান প্রজন্ম বিদ্যালয়ের ক্রিকেট খেলার এই বর্ণাঢ্য ঐতিহ্যকে ধারণ করে রাখতে বাৎসরিক ‘ক্রিকেট উৎসব’ আয়োজন করতে যাচ্ছে। একারণে একজন ক্রিকেটার হিসেবে এই বিদ্যালয়ের ক্রিকেট খেলার গোড়াপত্তন থেকে আজ অবধি সংশ্লিষ্ট সকলকে আমি ধন্যবাদ জানাই। আমি আরও জেনেছি যে, এই স্কুলের একজন সাবেক ছাত্র আইসিসিরি প্যানেল আম্পায়ার। খেলাধুলা আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। শিক্ষাজীবনে পড়াশোনার পাশাপাশি প্রতিটি শিক্ষার্থীর উচিত বিকাল খেলার মাঠে গিয়ে কিছুক্ষণ হলেও নিয়মিত খেলাধুলা করা। এক্ষেত্রে সম্মানিত অভিভাবকের সহযোগিতা একান্ত প্রত্যাশিত। খেলাধুলা শরীরচর্চা একজন মানুষকে আত্মবিশ্বাসী করে তোলে, মানসিক প্রশান্তি জোগায়, শরীর সুস্থ রাখে।

শিক্ষাজীবন শেষে এই বিদ্যালয়ের প্রিয় শিক্ষার্থীদের কেউ প্রশাসক, কেউ চিকিৎসক, কেউ প্রকৌশলী, কেউ আইনজীবী, কেউ হয়তো ক্রিকেটার হবে। আমাদের শিক্ষার্থীরা যে পেশায়ই নিয়োজিত হওয়ার স্বপ্ন দেখুক না কেন, তাদের সকলের মূল লক্ষ্য হওয়া উচিত ভালো মানুষ হওয়া, সোনার বাংলার সোনার মানুষ হওয়া।

আমি এনামুল হক বিজয়, ছোট্ট পরিসরেহলেও দেশের জন্য, নিজ এলাকার জন্য কিছু করতে শুরু করেছি। আমি জানি এইপথে আমি একা নই, আপনারা সকলেই নিজ নিজ অবস্থান থেকে দেশের জন্য মানুষের জন্য, নিজ এলাকার জন্য কাজ করে চিরপ্রশান্তির এই পথের যাত্রী হবেন। যাত্রাপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ১৯৯৩-২০১৯ ব্যাচের ‘ক্রিকেট উৎসব ২০২০’ এর সর্বাঙ্গীন সফলতা কামনা করছি। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন। সকলে ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। নিরন্তর শুভ কামনা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here