মামুনুল হককে কারাগারে ইবাদতের উপযোগী জায়গায় রাখতে বললেন আদালত

কারাগারে ইবাদত করার উপযোগী জায়গায় রাখার জন্য আদালতের কাছে আবেদন জানান হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সেক্রেটারি মাওলানা মামুনুল হক। রিমান্ড শুনানির সময় বিচারকের কাছে তিনি এ আবেদন করেন।

সোমবার রিমান্ড শুনানি শেষে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত মামুনুলের ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। মামুনুলের আবেদনও মঞ্জুর করেন আদালত।

রিমান্ড শুনানি শেষে মামুনুলের আইনজীবী সৈয়দ জয়নাল আবেদীন মেজবাহ একথা জানান। তিনি বলেন, শুনানি সময় আদালতে মাওলানা মামুনুল হক কথা বলার জন্য অনুমতি চান। অনুমতি নিয়ে মামুনুল হক বলেন, ‘আমি রমজানে নিয়মিত ইবাদত করি, রোজা রাখি। গতকাল (রোববার) আমাকে যেখানে রাখা হয়েছে সেটা বসবাস ও ইবাদতের অনুপযোগী। আমি আদালতের কাছে আবেদন জানাই, আমাকে যেন ইবাদতের উপযোগী জায়গায় রাখা হয়।’

তখন আদালত বলেন, ‘আপনাকে ইবাদতের উপযোগী জায়গায় রাখা হবে। আপনার কোনো কষ্ট হবে না, ইবাদতের বিঘ্ন ঘটবে না।’

আইনজীবী বলেন, মাওলানা মামুনুলের বিরুদ্ধে মসজিদ থেকে এক ব্যক্তিকে বের করে দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগে বলেছে, ওই ব্যক্তিকে বের করে দেওয়ার সময় তার কাছ থেকে টাকা নিয়ে নেওয়া হয়েছে। মূলত এ ধরনের কোনো ঘটনাই ওই ব্যক্তির সঙ্গে ঘটেনি।

তিনি আদালতকে বলেন, রোববার মামুনুলকে গ্রেফতার করার পর তাকে দীর্ঘসময় জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। সেজন্য তাকে আর রিমান্ডে নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

পরে আদালত হেফাজত নেতার ৭ দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, রোববার মামুনুল হককে ঢাকার একটি মাদ্রাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ১৬ টি মামলা রয়েছে ঢাকায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here