‘মনোবল ধরে রেখে শিক্ষার্থীদের করোনা মোকাবিলা করতে হবে’

স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করে ও মনোবল ধরে রেখে দেশের শিক্ষার্থীদের করোনাভাইরাসের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর মো. নোমান উর রশীদকে বিদায় সংবর্ধনা জানাতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন তিনি।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সবাইকে সতর্ক ও সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়ে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য বলেন, আমরা একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি। এটি যুদ্ধের মতো। আমরা ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছি। এই সময়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের প্রত্যেক সদস্যকে সর্বোচ্চ সতর্ক ও সচেতন থাকতে হবে। বিশেষ করে আমাদের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মনোবল শক্ত রেখে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে। হতাশ হওয়া যাবে না। আশা করি, অচিরেই আমরা এই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পারবো।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ।

তিনি বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে হবে। এক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা ও টিম ওয়ার্কের কোনো বিকল্প নেই। একটি প্রতিষ্ঠানের সার্বিক সাফল্য এবং কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে কোনো ব্যক্তির একক প্রচেষ্টা বা উদ্যোগ নয় বরং টিম ওয়ার্ক অপরিহার্য।

সংবর্ধিত অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর মো. নোমান উর রশীদ বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে আমার দায়িত্বের মেয়াদ শেষ হলেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের সবার দ্বিতীয় ঘর। এটিকে ভোলা যাবে না। আমরা আবার ঘুরে ফিরে আসবো। আমাদের মধ্যে যে বন্ধন তৈরি হয়েছে তা যেন অটুট থাকে, এই প্রত্যাশা রইল।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্নাতকোত্তর শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রের ডিন প্রফেসর ড. মো. আনোয়ার হোসেন, রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বদরুজ্জামান, প্রকৌশল দফতরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো. আবু হানিফ, অর্থ ও হিসাব শাখার পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) মো. সাজেদুল হক প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here