ভারতে গরুর মাংস পাচারের অভিযোগে মুসলিম যুবককে হাতুড়ি পেটা

গরুর মাংস পাচারের অভিযোগে এক মুসলিম যুবককে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আধমরা করলো, কথিত গো-রক্ষকরা।

শুক্রবার সকালে ভারতের রাজধানী দিল্লির কাছে অবস্থিত গুরগাঁওয়ে পুলিশের চোখের সামনেই ঘটে এ ঘটনা। যার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে অনলাইনে।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, পিটুনির শিকার যুবক লোকমান পেশায় ট্রাকচালক। কেবল সন্দেহের বশে প্রায় আট কিলোমিটার ধাওয়া করার পর তাকে টেনে হিঁচড়ে নামিয়ে নির্মমভাবে পেটানো হয়। এসময় বাধা দেয়া তো দূর, উল্টো কৌতুহলী জনতার ভিড়ে মিশে নীরব দর্শকের ভূমিকায় ছিলেন পুলিশ সদস্যরা। এমনকি দুর্বৃত্তদের না আটকে জব্দ করা মাংস গরুর কিনা, তা নিশ্চিতে মাংস ল্যাবে পাঠাতে ব্যস্ত ছিলেন তারা।

অভিযোগ উঠেছে, পুলিশের নিস্পৃহ আচরণই আরও বেপরোয়া করে তোলে ওই উগ্রবাদীদের। এ ঘটনায় আবারও আলোচনায়, ২০১৫ সালের দাদরি গণপিটুনি। সেবারও দিল্লির কাছেই নয়ডাতে গোমাংস রাখার অভিযোগে সংখ্যালঘু মুসলিম মোহাম্মদ আখলাককে পিটিয়ে হত্যা করে গ্রামবাসী।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here