লালমনিরহাটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) শহীদুল ইসলামের ভ্রাম্যমাণ আদালত আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের তিস্তা নদীর চৌরাহা এবং গোবর্ধনে সলেডি স্প্যার বাঁধে অভিযান চালিয়ে ২টি ড্রেজার (শ্যালো ইঞ্জিন চালিত) মেশিন জব্দ এবং অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। এ সময় একটি ড্রেজার মেশিন আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (২২ জানুয়ারি) পরন্ত বিকেলে তিস্তা নদীর এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (এনডিসি) শহীদুল ইসলাম সোহাগ এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

এই সময়ে বালুবহনকারী দুইটি ট্রলি আটক এবং ড্রেজার মেশিন মালিক মোসলেম উদ্দিনকে এক লক্ষ এগারো হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আদিতমারীর তিস্তা নদী থেকে দীর্ঘদিন ধরেই প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কিংবা আঁতাত করে বালু তুলছিল একটি শক্তচক্র। বিভিন্ন মাধ্যমে খবর প্রচার এবং স্থানীয়দের জোর চেষ্টা-সমালোচনার পরেও থেমে থাকেনি এই চক্রটি। স্থানীয় ভাবে অনেকের অভিমতে এমন অবাক করার মত তথ্যই উঠে এসেছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিট্রেট, সহকারী কমিশনার (এনডিসি) শহীদুল ইসলাম সোহাগ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুনঃ চ্যালেঞ্জ করেন কোন মেশিন দিয়ে বালু তোলা হচ্ছেনা

আরও পড়ুনঃ অবৈধ বালু উত্তোলন: সবাইকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখালেন পিআইও মফিজুল

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here