আগামী ২৬ জুলাই কলম্বোর প্রেমাদাসায় শুরু হচ্ছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের মধ্যকার ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। ঘরের মাঠে সিরিজ হওয়ায় জয়ের ব্যাপারে বেশ আত্ববিশ্বাসী শ্রীলঙ্কা।

দেশটির ক্রিকেট টালমাটাল অবস্থার মধ্যে দিয়ে গেলেও, ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি করতে বাংলাদেশ হোয়াইটওয়াশ করতে চায় তারা। স্বাগতিক দলের প্রধান নির্বাচক ডি মেল বলেছেন, ‘এই সিরিজে আমাদের প্রধান লক্ষ্য র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি করা। আমরা বর্তমানে আট নম্বরে আছি। বাংলাদেশ সাত নম্বরে। এই মুহূর্তে যেখানে আছি সেখান থেকে উন্নতি করতে আমাদের বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করতে হবে। আমরা তা করতে মুখিয়ে আছি।’

আইসিসির ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ে বর্তমানে আট নম্বরে রয়েছে শ্রীলংকা। তাদের রেটিং পয়েন্ট ৭৯। অন্যদিকে, ৯০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সাত নম্বরে বাংলাদেশের অবস্থান। টাইগারদের হোয়াইটওয়াশ করলেও র‍্যাংকিংয়ে তাদের ওপরে ওঠা কাগজে-কলমে একদম অসম্ভব।

এদিকে খেলা নিজেদের মাটিতে হলেও সবগুলো ম্যাচই নিরপেক্ষ উইকেটে হবে নিশ্চিত করেছেন ডি মেল। তিনি জানিয়েছেন স্টেডিয়ামের পিচ কিউরেটর গডফ্রে ডাবারকে নিরপেক্ষ উইকেট বানানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন তিনি, ‘আমি গডফ্রেকে বলেছি তিন ম্যাচের জন্যই ভালো উইকেট বানাতে। যেখানে সবাই ভালো করতে পারবে। বোলাররা পেস ও বাউন্স পাবে, সেই সঙ্গে ব্যাটসম্যানরাও যাতে ভালোভাবে ব্যাটিং করতে পারে। দুই দলের কথা মাথায় রেখেই তাকে এমনটা বলেছি। তিনটি ম্যাচেই স্পোর্টিং উইকেট থাকবে এবং সবগুলোই নতুন উইকেট হবে।’

উল্লেখ্য, ২৬ জুলাই হবে সিরিজের প্রথম ম্যাচের পর দ্বিতীয় ম্যাচ মাঠে গড়াবে ২৮ জুলাই। ৩১ জুলাই সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ খেলবে এ দুই দল। সিরিজ শুরুর আগে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here