বন্ধুর বিয়েতে মদপানে ছাত্রলীগকর্মীর মৃত্যু, অসুস্থ আরও ২

খুলনার পাইকগাছায় বন্ধুর বিয়েতে গিয়ে অতিরিক্ত মদপানে একজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম নবদ্বীপ হালদার। তার বয়স ২৪ বছর। তিনি খড়িয়া গ্রামের বিকাশ চন্দ্র হালদারের ছেলে।

একই ঘটনায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে আরও দুইজন। তাদের বাড়ি পাইকগাছার খড়িয়া ও পৌরসভার সরল গ্রামে। তারা সবাই ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত বলে জানা গেছে।

বিয়েবাড়ি, পুলিশ ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পাইকগাছা উপজেলার দক্ষিণ কাইনমুখী গ্রামের চিত্তরঞ্জন মণ্ডলের ছেলে অমিত মণ্ডলের সঙ্গে কেশবপুর উপজেলার চুয়োডাঙ্গা গ্রামের বিকাশ মল্লিকের মেয়ের শনিবার রাতে বিয়ে হয়। বরযাত্রীতে যাওয়া অমিতের বন্ধু খড়িয়া গ্রামের বিকাশ চন্দ্র হালদারের ছেলে নবদ্বীপ হালদার (২৪), সরল গ্রামের অনুকুল ব্যানার্জির ছেলে নব কুমার ব্যানার্জি (২২) ও একই গ্রামের সুকুমার চক্রবর্তীর ছেলে পার্থ প্রতীম চক্রবর্তী (৩০) দাওয়াত খেয়ে ফেরার পথে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পাইকগাছায় পৌঁছার পর তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় রাতে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। আজ রোববার খুলনায় যাওয়ার পথে কপিলমুনি পৌঁছলে সকাল ৮টায় নবদ্বীপ হালদার মারা যান।

নবকুমার ও পার্থ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতালের রিপোর্টে দেখা গেছে, অ্যালকোহল পানে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন।

মৃত নবদ্বীপ হালদার ও গুরুতর অসুস্থ নব কুমার ব্যানার্জি সক্রিয় ছাত্রলীগ কর্মী বলে জানা গেছে। এছাড়া পার্থ প্রতীম চক্রবর্তী খুলনা জেলা ছাত্রলীগের উপক্রীড়া সম্পাদক।

এ বিষয়ে পাইকগাছার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এজাজ শফী বলেন, ‘তারা যশোরে একটি বিয়ের দাওয়াতে যান। সেখানে অতিরিক্ত মদ পান করেন। পাইকগাছায় ফিরে তারা তিনজনই অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে স্থানান্তরের সময় নবদ্বীপ মারা যান।’

তিনি আরও বলেন, মরদেহ সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য খুমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বর অমিত জানান, বিয়ের অনুষ্ঠানে অন্য কোনো অতিথিদের সমস্যা হয়নি। সেখানে খাবারে কোনো সমস্যা ছিল না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here