প্রতি আউন্স সোনার দাম কমলো ১০ হাজার টাকা

করোনা মহামারিতে দাম বৃদ্ধির রেকর্ডের পর রেকর্ড গড়ে গেল কয়েক দিন ধরে দর পড়তির মুখে পড়েছে স্বর্ণ। চলতি মাসের শুরু থেকেই আন্তর্জাতিক বাজারে কিছুটা নমনীয়ভাব দেখা যায় মূল্যবান এই ধাতুটির। এরমধ্যে গতকাল (১১ আগস্ট) একদিনেই প্রতি আউন্স সোনার দাম কমেছে ১১৭ ডলার (প্রায় ১০ হাজার)। এদিন বাজারে প্রতি আউন্স সোনার হাত বদল শুরু হয় ২০২৭ ডলারে আর দিন শেষ হয় ১৯১০ ডলারে নামে। গোল্ড প্রাইসের হালনাগাদ পরিসংখ্যানে এই তথ্য পাওয়া যায়।

৭ আগস্ট নিউইয়র্ক সময় সকাল ৯টার আগ দিয়ে বাজারে পড়তে শুরু করে সোনার দাম। ওই সময় প্রতি আউন্স সোনা বিক্রি হয় ২ হাজার ৬১ ডলারে। ওই দিন কমতে কমতে ২ হাজার ১৮ ডলারে নামে প্রতি আউন্স সোনার দাম। এরপরে অবশ্য ঊর্ধমুখী প্রবণতা দেখিয়ে সেদিন বাজার শেষ হয় ২ হাজার ৩৫ ডলার। ৮ আগস্ট আন্তর্জাতিক বাজারে মোটামুটি এই দামের আশেপাশেই সোনা বিক্রি হয়। দিনও শেষ হয় ২ হাজার ৩৫ ডলারেই। ৯ আগস্ট এই দামে বাজারে এলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পড়তে থাকে মূল্যবান এই ধাতুর দাম। নেমে আসে ২ হাজার ২৫ ডলারে।

এরপর ওঠানামার মধ্য দিয়ে ২ হাজার ৩০ ডলারের সেদিনের লেনদেন শেষ হয় সোনার। ১০ আগস্ট বেশ খানিকটা চড়ে যায় বিনিয়োগের নিরাপদ মাধ্যম হিসেবে সমাদৃত সোনার দাম। সেদিন বেশিক্ষণ ২ হাজার ৪৬ ডলারে বিনিয়োগকারীদের হাত বদল হয় প্রতি আউন্স সোনা। এরপর পড়তে পড়তে দাম নেমে আসে ২ হাজার ২৯ ডলারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here