পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ব্যাটিংয়ে নেমেই তাণ্ডব চালান ধানুস্কা গুনাথিলাকা। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৩২ বলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ফিফটি তুলে নেন তিনি। উদ্বোধনী জুটিতে আভিস্কা ফার্নান্দোকে সঙ্গে নিয়ে ৮৪ রান সংগ্রহ করেন গুনাথিলাকা। খেলার এমন অবস্থায় লংকান সমর্থকরা আশা করেছিলেন দুইশ ছুঁই ছুঁই স্কোর গড়বে শ্রীলংকা।

কিন্তু উড়ন্ত সূচনার পরও শ্রীলংকার ব্যাটিং বিপর্যয়। বিনা উইকেটে ৮৪ রান করা দলটি এরপর ৬৯ রানের ব্যবধানে হারায় ৫ উইকেট। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পতনের কারণে শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ১৬৫ রান তুলতে সক্ষম হয় লংকানরা।

শনিবার লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম খেলায় টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে শ্রীলংকা।

উদ্বোধনী জুটিতে আভিস্কা ফার্নান্দোকে সঙ্গে নিয়ে ৯.৪ ওভারে ৮৪ রানের জুটি গড়েন গুনাথিলাক। আভিস্কা উইকেটের এক পাশ আগলে রাখলেও অন্য প্রান্তে রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান গুনাথিলাকা।

একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৩২ বলে ৮টি চার ও এক ছক্কায় টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ১৭তম ম্যাচে দ্বিতীয় ফিফটি তুলে নেন তিনি। শাদাব খানের লেগ স্পিনে এলবিডব্লিউ হওয়ার আগে ৩৮ বলে ৫৭ রান করে ফেরেন গুনাথিলাকা।

দ্বিতীয় উইকেটে ভেনুকা রাজাপাকশের সঙ্গে ৩৬ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফেরেন অন্য ওপেনার আভিস্কা ফার্নান্দো। ভুল বোঝাবুঝির কারণে রান আউটের ফাঁদে পরেন। তার আগে ৩৪ বলে তিনটি বাউন্ডারির সাহায্যে ৩৩ রান করেন আভিস্কা।

ওয়ান ডাউনে ব্যাটিংয়ে নামা ভেনুকা রাজাপাকশে ২২ বলে দুই চার ও সমান ছক্কায় ৩২ রান করতেই মোহাম্মদ হাসনাইনের বলে এলবিডব্লিউ হন। শেষ দিকে দাসুন শানাকা ১৭ আর শিহান জয়সুরিয়া ২ রান করে হাসনাইনের শিকারে পরিনত হয়ে সাজঘরে ফেরেন। পাকিস্তানের হয়ে চার ওভারে ৩৭ রানে ৩ উইকেট শিকার করেন মোহাম্মদ হাসনাইন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here