পাঁচ কলেজ থেকে বাদ পড়ল স্বাধীনতাবিরোধীদের নাম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন পাঁচ কলেজ থেকে স্বাধীনতাবিরোধীদের নাম বাদ পড়ছে। বৃহস্পতিবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমনটা বলা হয়।

এতে বলা হয়, ইতোমধ্যে একটি কলেজের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে। বাকি চারটি কলেজের নাম পরিবর্তনের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

তারা জানায়, রাঙামাটির রাবেতা মডেল কলেজের নাম পরিবর্তন করে লংগডু মডেল কলেজ রাখা হয়েছে।

‘বিশেষ একটি সংস্থার’ মাধ্যমে কলেজটি পরিচালিত হয়ে আসছিল বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। যুদ্ধাপরাধে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া মীর কাশেম আলী বেসরকারি সংস্থা রাবেতা আলম আল ইসলামীর পরিচালক ছিলেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আর যে চারটি কলেজের নাম পরিবর্তনের চূড়ান্ত প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছে সেগুলো হলো হবিগঞ্জের মাধবপুরের সৈয়দ সঈদউদ্দিন কলেজ। এর পরিবর্তিত নাম হচ্ছে মৌলানা আছাদ আলী ডিগ্রি কলেজ।

কক্সবাজারের ঈদগাও ফরিদ আহমেদ কলেজ। পরিবর্তিত নাম হচ্ছে ঈদগাও রশিদ আহমেদ কলেজ। টাঙ্গাইলের বাসাইল এমদাদ হামিদা কলেজ। পরিবর্তিত নাম হচ্ছে বাসাইল ডিগ্রি কলেজ। গাইবান্ধার ধর্মপুর আব্দুল জব্বার কলেজ। এর পরিবর্তিত নাম হচ্ছে ধর্মপুর ডিগ্রি কলেজ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক ফয়জুল করিম জানান, এক বছর আগে সারা দেশে স্বাধীনতাবিরোধী ও যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ থাকা ব্যক্তিদের নামে যেসব কলেজ রয়েছে, সেগুলো চিহ্নিত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। পাশাপাশি এসব কলেজের নাম পরিবর্তনের জন্য সংশ্লিষ্ট কলেজের পরিচালনা পর্ষদকে চিঠি দেওয়া হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here