নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) হযরত বিবি খাদিজা হলে সিট নিয়ে দুই ছাত্রীর মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে এক শিক্ষার্থীর আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সোমবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। উক্ত হলের প্রভোষ্ট ড. আতিকুর রহমাম ভূইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান অতিশীঘ্রই এই ব্যাপারে তদন্ত কমিটি গঠন করে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আহত ছাত্রী খাদ্য প্রযুক্তি ও পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগের ১২ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মলুয়া আক্তার মলি জানান ‘প্রোভষ্টের মাধ্যমে হলে উঠলেও, আনিকা আপু জোড় পূর্বক আমাকে হল থেকে বের করে দেয়ার জন্য আজ রুম থেকে আমার সকল জিনিস পত্রসহ সিট বাইরে ফেলে দেয়’।

অপর দিকে ইংরেজী বিভাগের ৯ম ব্যাচের শিক্ষার্থী আনিকা মেহজাবিন নদী জানান, ‘রাজনীতি করার জন্য আমি মলিকে হলে তুললেও এখন সে রাজনীতিতে অনিহা প্রকাশ করায়, তাকে হলের সিট ছেড়ে দিতে বলায় সে আমার উপর হাত তুলে, এবং নিজে বাঁচার জন্য নিজের হাত নিজেই কেটে ফেলে।’ বিনা অনুমতিতে হলে উঠানোর ব্যাপারে জিজ্ঞসা করা হলে তিনি জানান ‘রাজনৈতিক ভাবে সবাই এই রকম ভাবেই হলে উঠায়’।

অপরদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের সাথে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, ‘এরা ছাত্রলীগের কেউ না। এরা ছাত্রলীগের কোন প্রোগ্রামেও থাকে না।’

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here