নিজেকে সাকিবের ‘অন্ধভক্ত’ দাবি মহসিনের

সম্প্রতি ভারতের কলকাতায় সাকিবের কালীপূজা উদ্বোধনের খবর শুনে ক্ষুব্ধ হন মহসিন তালুকদার। সেই ক্ষোভের বশেই সাকিবকে ফেসবুকে লাইভে এসে হত্যার হুমকি দিয়ে বসেন মহসিন। হত্যার হুমকি দিয়ে গ্রেপ্তারও হয়েছেন তিনি। মহসিন তালুকদার দাবি করেছেন, তিনি মূলত ক্রিকেটপ্রেমী ও সাকিবের অন্ধভক্ত।

আজ বিকেলে সিলেটে র‌্যাব–৯–এর সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৯–এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবু মুসা মো. শরিফুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, কারও প্ররোচনায় নয়, নিজের ক্ষোভ থেকেই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন মহসিন। র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এ ঘটনার পেছনে কারও ইন্ধন পাওয়া যায়নি। হুমকির সময় ব্যবহৃত অস্ত্রটি উদ্ধার করেছে র‌্যাব। অস্ত্রটি কোরবানির সময় কিনেছিলেন মহসিন।

গত রোববার রাতে ফেসবুক লাইভ থেকে অস্ত্র হাতে নিয়ে সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকি দিয়েছিলেন মহসিন তালুকদার। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে নড়েচড়ে বসে সিলেটের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পুলিশের পাশাপাশি অভিযানে নামে র‌্যাব। মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ পূর্বপাগলা ইউনিয়নের রনশি গ্রাম থেকে মহসিনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। এর আগে সোমবার রাতে সিলেটের জালালাবাদ থানায় পুলিশ বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে।

মহসিন তালুকদার সিলেট সদর উপজেলার শাহপুর তালুকদারপাড়া গ্রামের আজাদ বক্স তালুকদারের ছেলে। র‍্যাব কর্মকর্তারা জানান, দক্ষিণ সুনামগঞ্জে মহসিন তাঁর স্ত্রীর বড় বোনের বাসায় আত্মগোপনে ছিলেন। বিভিন্ন সূত্র ধরে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের রনশি গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় মহসিনের স্ত্রীকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে র‍্যাব। মহসিনকে জালালাবাদ থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here