নিখোঁজ ঢাবি শিক্ষার্থী ফরহাদের সন্ধানে ঢাবি ছাত্রদলের ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিখোঁজ হওয়া শিক্ষার্থী মোঃ রেদোয়ান ফরহাদের সন্ধানে ২৪ ঘন্টা আল্টিমেটাম দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল। সন্ধান না পেলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারিও দেন তারা।

আজ সোমবার ঢাবি ছাত্রদলের আহবায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব এবং সদস্য সচিব আমানউল্লাহ আমানের স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে এমনটি জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আরবি বিভাগ থেকে সদ্য মাস্টার্স পাশ করা শিক্ষার্থী, কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার বাসিন্দা মোঃ রেদোয়ান ফরহাদকে গত ২৪ জুলাই ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ধরে নিয়ে যায়। তার আগে ফরহাদের বড় ভাই রাশেদ খাঁনকে সাদা পোশাকধারীরা ধরে নিয়ে যায়। পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে খোঁজ নিয়ে আমরা জানতে পেরেছি, সাদা পোশাকের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ফরহাদকে যখন ধরে নিয়ে যায়, সাথে সাথে ফরহাদের বৃদ্ধ বাবা-মা দৌড়ে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে যায় এবং হ্যান্ডকাপ পড়ানো অবস্থায় তারা ফরহাদকে ফাঁড়িতে দেখতে পায় কিন্তু পুলিশ প্রশাসন ফরহাদকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি প্রথম থেকেই অস্বীকার করছে। মহেশখালী থানা পুলিশ ফরহাদের গুমের বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে সাধারণ ডায়েরী পর্যন্ত গ্রহণ করেনি। সার্বিক পরিস্থিতি এবং পুলিশের আচরণে আমরা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ফরহাদের জীবন নিয়ে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মোঃ রেদোয়ান ফরহাদ যদি কোন অপরাধের সাথে সম্পৃক্ত থাকে,তাহলে প্রচলিত আইন অনুযায়ী তার বিচারের ব্যবস্থা করতে হবে কিন্তু গুম করে ফেলা রাষ্ট্রের বিচারব্যবস্থার প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানো এবং নাগরিকদের সাংবিধানিক অধিকার হরণের শামিল।

বাংলাদেশে অবৈধ আওয়ামীলীগের শাসনামলে সাদা পোশাকধারী তথা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক বিগত ১১ বছরে গুম খুনের যে সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে, সেই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের কোন নাগরিকই নিরাপদ নয়। বিগত ১১ বছরে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন করতে গিয়ে সাদা পোশাকধারী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের হাজারের অধিক নেতা-কর্মী গুমের শিকার হয়েছে।

কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আমরা অনতিবিলম্বে মোঃ রেদোয়ান ফরহাদ এবং তার বড় ভাই মোঃ রাশেদ খানের সন্ধান দাবী করছি। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদের সন্ধান না পেলে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল সাধারণ শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here