“দেশের রাজনৈতিক দল গুলোর ;দল চালানোর ফান্ডিং অদৃশ্য ” : রাশেদ

দেশের রাজনৈতিক দল গুলো তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে ব্যাবহৃত অর্থের যোগানের বিষয়টি পরিষ্কার নয় বলে মনে করেন বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ। শনিবার স্টুডেন্ট জার্নালের সাথে কথপোকথনে এমনই এক মন্তব্য করেন তিনি। রাশেদ বলেন, দেশের রাজনৈতিক দল গুলোর দল চালানোর ফান্ডিং অদৃশ্য। তাই, তারা এ জায়গা থেকে বের হয়ে বিকল্প উপায়ে জনগণের পাশে থাকতে চান বলে জানান এই ছাত্রনেতা।
তিনি আরো বলেন, “আমরা জনগনের কাছে দায়বদ্ধ থাকতে চাই। আমরা সবাই মুটামুটি বেকার। আমরা নিজেরা উপার্জন করে দল করব সে সামর্থ্য আমাদের নাই। তাই আমরা আনুষ্ঠানিক ভাবে গণ চাঁদার জন্য আহবান করছি।”
” আমরা মানুষের জন্য কাজ করি, জনগনের জন্য কাজ করি। জনগনের অর্থে আমরা আমাদের দল পরিচালনা করতে চাই। আমরা জনগণের কাছে দায়বদ্ধ থেকে কাজ করতে চাই “
” গণ চাঁদা আদায়ের ক্ষেত্রে কোন লক্ষ্য মাত্রা আছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে রাশেদ বলেন, কোন লক্ষ্যমাত্রা নেই। তবে আমরা পর্যাপ্ত অর্থ আদায় হলে জানিয়ে দিবো “
স্বচ্ছতার ব্যাপারে তিনি বলেন, “আমরা যে নম্বর দিয়েছি এবং ব্যাংক একাউন্ট নম্বর দিয়েছে সেগুলো থেকে প্রশাসন খুব সহজেই বুঝতে পারবে। কত টাকা আয় হলো এবং কত টাকা ব্যায় হলো, মাস শেষে আমরা তার হিসাব দিয়ে দিবো”।
এর আগে গতকাল রাতে বাংলাদেশ ছাত্র, যুব ও শ্রমিক অধিকার পরিষদের প্যাডে গণ অধিকার পরিষদ নামে নতুন রাজনৈতিক প্লাটফর্ম তৈরির লক্ষ্যে গণ চাঁদা আহবান করেন তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here