আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর কে.এম. গোলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, দুর্নীতির জন্য সারাদেশে আজ মানবতা সংকটে। দুর্নীতি গ্রাস করেছে গোটা দেশকে। দেশের উন্নয়ন হচ্ছে, কিন্তু সাধারণ মানুষের ভাগ্যের উন্নতি হচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এমন প্রজন্ম গড়ে তোলা উচিত যারা দেশ ও জাতির জন্য ভূমিকা রাখতে পারে। আইআইইউসি সেই লক্ষ্যেই গুণমান ও নৈতিকতার সমন্বয়ে আন্তর্জতিক মানের শিক্ষা প্রদান করে যাচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার সকালে কুমিরাস্থ স্থায়ী ক্যাম্পাসে আইআইইউসি‘র স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশন (স্ট্যাড) আয়োজিত শরৎকালীন সেমিস্টার-২০১৯-এর নবাগত ছাত্রীদের ৪৯তম ব্যচের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইআইইউসি‘র ভাইস চ্যান্সেলর এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

আইআইইউসি‘র প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ দেলাওয়ার হোসেন, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আবদুল মান্নান চৌধুরী, শরী‘য়াহ অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. শাফিউদ্দীন মাদানী, কলা ও মানবিক অনুষদের ডীন ড. মোহাম্মদ রিয়াজ মাহমুদ, আইআইইউসি‘র রেজিস্ট্রার কর্নেল মোহাম্মদ কাসেম পিএসসি (অবঃ), ফিমেল জোন প্রধান ও ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সালমা হক, সহকারী প্রক্টর মোঃ নিজামউদ্দিন এবং স্বাগতঃ বক্তব্য রাখেন স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মোহাম্মদ মামুনুর রশীদ।

অভিভাবকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন মাওলানা হুজ্জাতুল ইসলাম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন স্ট্যাড এর অতিরিক্ত পরিচালক কবি ও বাচিক শিল্পী চৌধুরী গোলাম মাওলা ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এমদাদ হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইআইইউসি’র ভিসি প্রফেসর কে. এম গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, আমাদের দেশের জনসংখ্যার বিশ শতাংশ লোক দারিদ্র্যপীড়িত হওয়ার প্রধান কারণ হচ্ছে দুর্নীতি। শিক্ষিত লোকেরাই এই দুর্নীতি করছে। দরিদ্র জনগণের জন্য বরাদ্দকৃত টাকা মধ্যস্বত্বভুগীদের হাতে চলে যাচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার পূরণের লক্ষ্যে ক্যাম্পাসকে জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস ও ধূমপানমুক্ত রেখে চলেছি। তিনি ছাত্রীদেরকে হলমার্কের জেসমিন না হয়ে দিনশেষে আত্মসমালোচনা করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে আইআইইউসি’র প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদী বলেন, শিক্ষার্থীরা পুকুর, নদী হয়ে জ্ঞানসাগরে ডুব দিতে এসেছে। এখন সময়কে মূল্য দিতে হবে। সময় হচ্ছে টুকরো বরফের মত, ফেলে রাখলে গলে যাবে। তাই সময়ের সদ্ব্যবহার করতে হবে এবং সচেতনভাবে জ্ঞান আহরণ করতে হবে।

এদিকে দুপুর বেলায় ছাত্রদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে আইআইইউসি ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ বলেন, দেশে এখন সৎ লোকের বেশি প্রয়োজন, প্রধানমন্ত্রী অসৎ লোক বাদ দিচ্ছেন, সৎ লোক খুঁজছেন। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বেশি বেশি সৎ লোকের প্রয়োজন। তিনি বলেন, বর্তমান প্রজন্ম মোবাইল আর ইন্টারনেটে সময়ের অপচয় করছে। এই ধ্বংশের হাত থেকে বাঁচাতে মা-বাবাকেই দায়িত্ব নিতে হবে। তাদের কাজ হচ্ছে সন্তানদের সহজ-সরল পথ দেখিয়ে দেয়া। এ প্রসঙ্গে তিনি প্রযুক্তির সুফল নিয়ে কুফল থেকে নিজেদেরকে বাঁচানোর আহ্বান জানান। এমন সমৃদ্ধ ক্যাম্পাসে পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা নিয়ে লেখাপড়া করা সৌভাগ্যের ব্যাপার বলে তিনি উল্লেখ করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here