তথ্য গোপন করে দ্বিতীয় বিয়ে, শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ

স্ত্রী-সন্তান থাকার পরও প্রথম বিয়ের তথ্য গোপন করে অবিবাহিত সেজে দ্বিতীয় বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে এক কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে। তার নাম নারায়ণ চন্দ্র মণ্ডল। তিনি মানিকগঞ্জের বিচারপতি নুরুল ইসলাম কলেজের ইংরেজির প্রভাষক।

ঘটনা সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে রোববার (১৮ এপ্রিল) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর ঢাকা অঞ্চলের পরিচালক ও সহকারী পরিচালককে (কলেজ শাখা) নির্দেশ দিয়েছে। অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল কাদের স্বাক্ষরিত আদেশে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

অধিদফতরের আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে, গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর মানিকগঞ্জের সদ্য জাতীয়করণ করা বিচারপতি নুরুল ইসলাম কলেজের শিক্ষক নারায়ণ চন্দ্র মণ্ডল তথ্য গোপন করে হিন্দু রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে জয়শ্রী পালকে বিয়ে করেন। পরবর্তীতে জয়শ্রী পাল জানতে পারেন নারায়ণ চন্দ্র বিবাহিত এবং প্রথম স্ত্রী-সন্তানকে ভারতে রেখে তথ্য গোপন করে অবিবাহিত সেজে তাকে বিয়ে করেছেন।

আদেশের চিঠিতে বলা হয়, জয়শ্রী পাল কলেজ গভর্নিং বডি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ করে কোনো প্রতিকার পাননি। শিক্ষকতা পেশার সঙ্গে জড়িত একজন ব্যক্তি প্রতারণার আশ্রয় নেওয়ায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরে আবেদন করেন তিনি।

এতে আরও বলা হয়েছে, অভিযোগটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য ঢাকা অঞ্চলের পরিচালক ও সহকারী পরিচালককে (কলেজ) তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে। এমতাবস্থায় সরেজমিনে তদন্ত করে সুস্পষ্ট মতামতসহ প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here