জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) প্রকৃতি ধ্বংস করে এবং অপরিকল্পিত ও অস্বচ্ছ্ উন্নয়ন প্রকল্পের প্রতিবাদে আজ (মঙ্গলবার) বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষক শিক্ষার্থী ঐক্য মঞ্চ। বেলা বারোটায় টারজান পয়েন্ট থেকে মিছিল শুরু হয়ে সমাজবিজ্ঞান অনুষদ, শহীদ মিনার , বটতলা প্রদক্ষিন করে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হল সংলগ্ন শান্তি নিকেতনে সমাবেশ করা হয়। মিছিল সমাবেশে নৃবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধায়পক সাইদ ফেরদৌস সহ বেশ কয়েকজন শিক্ষক, বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতা কর্মী এবং সাধারন শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

মিছিল শেষে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক শিক্ষার্থী ঐক্য মঞ্চের প্রতিনিধিরা। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) এর সভাপতি মাহাথির মোহাম্মদ তার বক্তব্যে বলেন ,”উপাচার্য ড ফারজানা ইসলাম মিথ্যাবাদী, তিনি আশ্বাস দিয়ে তা অতীতে কখনই রক্ষা করেন নাই”। তিনি প্রশাসনকে ফাপড়বাজ আখ্যা দিয়ে উপাচার্যকে ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে প্রকৃতি ধ্বংস না করার আহ্বান জানান। অধ্যাপক শামিমা সুলতানা বলেন , “ভাল কোন কিছুই আমরা সহজে পাই না।এজন্য আমাদের আন্দোলন , সংগ্রাম করতে হয়”। “আমরা উন্নয়নের অন্তরায় নই, আমরা পরিকল্পিত উন্নয়ন চাই।উন্নয়নের নামে প্রহসন বন্ধ করার দাবি জানান তিনি।”

সমাবেশে অধ্যাপক মানস চৌধুরি তার বক্তব্যে বলেন “উন্নয়ন কাজ চলছে ১৪৪৫ কোটি টাকার ম্যাজিকে, এই উন্নয়ন প্রকল্পে সাধারন শিক্ষার্থী এবং জাহাঙ্গীরনগরের প্রতি দায়বদ্ধতা নাই।এই উন্নয়ন প্রকল্প আসলে ১৪৪৫ কোটি টাকা খেয়ে ফেলার মাস্টারপ্লান”।

এছাড়াও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ দিদার, সাধারন ছাত্র অধিকার সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নাল আবেদিন এবং সাংস্কৃতিক জোটের সহ সম্পাদক তানভির। বক্তারা এসময় তিন মাসের মধ্যে দাবি মেনে নেয়ার দাবি জানান। তারা এসময় পরিবেশবান্ধব, স্বচ্ছ এবং সর্বজন সম্মত উন্নয়ন প্রকল্পের দাবি জানান।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মহাউন্নয়ন পরিকল্পনার আওতায় নতুন অবকাঠামো নির্মান সহ উন্নয়ন প্রকল্প সাধারন শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন অংশীজনের কাছে বেশ সমালোচনা এবং বিতর্কের মুখে পরেছে। এই উন্নয়ন প্রকল্পকে অপরিকল্পিত,অস্বচ্ছ এবং লুকোচুরির উন্নয়ন বলে দাবি করে তা বন্ধ করে সবার মতামতের ভিত্তিতে গ্রহনযোগ্য উন্নয়ন প্রকল্প পরিচালনা করার দাবিতে প্রতিদিনই মিছিল , সমাবেশ করছে সাধারন শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সংগঠন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here