জমিদখলের প্রতিবাদ করায় শিক্ষককে মারধর

রংপুর নগরীর আলমনগর খামার এলাকায় হিন্দু সংখ্যালঘু স্কুল শিক্ষকের সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে জমি দখল করার প্রতিবাদ করায় পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা।

এ ঘটনায় নগরীর মেট্রোপলিটান কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করলে সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যা করার অব্যাহত হুমকির মুখে চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্য দিয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে।

লিখিত অভিযোগে জানা গেছে রংপুর নগরীর কেরানী পাড়া মহল্লার শুভেন্দু ঘোষ তার মায়ের নামে নগরীর আলমনগর খামার এলাকায় একটি বাড়ি আছে সেটি সীমানা প্রাচীর দিয়ে ছাত্রবাস হিসেবে ভাড়া দিয়ে ভাড়ার অর্থ দিয়ে সংসার পরিচালনা করে আসছে। পার্শ্ববর্তী আমির হোসেন নামে এক ব্যক্তি সীমানা প্রাচীর ভেঙে জায়গা দখলের পায়তারা করে আসছিলো।

কয়েকদিন আগে আমির হোসেন সন্ত্রাসী লোকজন ভাড়া করে বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে জায়গা দখল করতে আসলে শুভেন্দু বাঁধা দেন এ সময় সন্ত্রাসীরা তার ওপর অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে তাকে পিটিয়ে গুরতর আহত করে। এ ঘটনায় মেট্রোপলিটান কোতয়ালি থানায় আসামিদের নামে মামলা দায়ের করা হয়। যার মামলা নম্বর ১৭।

এই মামলা দায়ের করার পর সন্ত্রাসীরা আরও ক্ষিপ্ত হয়ে মামলা করার সাধ মিটিয়ে দেবে বলে প্রকাশ্যেই প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করছে। ফলে চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্য দিয়ে দিন কাটছে তাদের। সংখ্যালঘু শুভেন্দু জানান, আমি হিন্দু বলে আমাকে নানানভাবে হুমকি প্রদর্শন করছে। বিষয়টি কোতোয়ালি থানায় জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বিষয়টি দেখছেন বলে জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here