ছাত্রলীগ নেত্রীর ‘প্রশ্রয়ে’ রোকেয়া হলে চলছে ছেলেদের যাওয়া-আসা!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলে ছাত্রলীগ নেত্রীর ‘প্রশ্রয়ে’ বহিরাগত ও ক্যাম্পাসের ছেলে শিক্ষার্থীদের ‘অবাদ’ যাওয়া আসার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ওই ছাত্রলীগ নেত্রীর নাম শ্রাবনী দিশা। তিনি ছাত্রলীগের রোকেয়া হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ।

হল সূত্রে জানা যায়, দিশা প্রায়ই হলে তার ছেলে বন্ধুদের নিয়ে যান। ক্যান্টিনে তাদের সাথে খাবার খান। গেস্টরুম বন্ধ হয়ে গেলেও সিকিউরিটি গার্ড দিয়ে খুলে সেখানে আড্ডা দেন। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন দিশা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রোকেয়া হলের এক জন শিক্ষার্থী বলেন, শ্রাবণী দিশা হলের ক্যান্টিনে বহিরাগত ছেলে নিয়ে আসেন। অথচ একজন সাধারণ ছাত্রী ইচ্ছা করলেই তার বাবা কিংবা ভাইকে হলে প্রবেশ করাতে পারেন না। অনেক সময় গেস্টরুম বন্ধ থাকলে খুলে দেওয়ার কথা বললেও হল প্রশাসন তা খুলে দেয় না। কিন্তু তারা চাইলে সবই সম্ভব হয়।

এসব অভিযোগের বিষয়ে ছাত্রলীগ নেত্রী শ্রাবণী দিশা বলেন, আমি এর আগে কেন ছেলে বন্ধুদের নিয়ে আসতে যাবো? সমাবর্তন উপলক্ষে আমার দুই জন ছেলে জুনিয়র এসেছিল। ওরা মূলত আমার ছবি তুলে দিতে এসেছিল। বিষয়টা এমনভাবে ছড়িয়ে যাবে বুঝতে পারিনি।

হলে বহিরাগত ছেলে জুনিয়রদের প্রবেশ করানোর অনুমতি নিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে শ্রাবণী দিশা বলেন, তা নেওয়া হয়নি। ওই সময় প্রভোস্ট ম্যাম ও হাউজ টিউটররা ছিলেন না।

এ বিষয়ে রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জিনাত হুদা বলেন, এইটা সম্পূর্ণ নিয়ম বহির্ভূত। প্রভোস্টের অনুমতি ছাড়া যাওয়া যায় না। আমি কালই এই বিষয়ে দেখবো। শুধু দেখবো না অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দেখবো।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here