গাড়ি ও বাইক চালকদের প্রতি ডিএমপির পরামর্শ

প্রত্যেকেরই যার যার অবস্থানে রয়েছে কিছু দায়িত্ববোধ। তেমনি রাস্তায় গাড়ি চালাতে গিয়ে চালক হিসেবে আপনার কিছু দায়িত্বশীল ও সচেতনতামূলক আচরণ সকলের কাছে কাম্য। গাড়ি চালকের প্রতি কিছু পরামর্শ দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। আসুন জেনে নেয়া যাক পরামর্শগুলো।

গাড়ি চালকদের প্রতি

১। গাড়ি চালানোর পূর্বে গাড়ির সমস্ত কাগজপত্র ও ড্রাইডিং লাইসেন্স চেক করে নিন এবং হালনাগাদ কাগজপত্র সাথে রাখুন।

২। অযথা হর্ণ বাজানো থেকে বিরত থাকুন।

৩। সিটবেল্ট বেঁধে গাড়ি চালান।

৪। গাড়ি চালানোর সময় গতিসীমা মেনে চলুন।

৫। ঘনঘন লেন পরিবর্তন করা থেকে বিরত থাকুন।

৬। অযথা ওভারটেকিং করা থেকে বিরত থাকুন এবং সতর্কতার সাথে ওভারটেকিং করুন।

৭। স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের লোগোসহ স্থায়ী স্টিকার ব্যতীত আলগা/অস্থায়ী যে কোন ধরণের স্টিকার ব্যবহার হতে বিরত থাকুন।

৮। দূর্ঘটনা প্রতিরোধে গাড়ির যন্ত্রাংশ নিয়মিত চেক করে নিন।

৯। উল্টো পথে যে কোন যান চালানো থেকে বিরত থাকুন।

১০। গাড়ি চলাচলের নির্ধারিত পথে গাড়ি পার্ক করে প্রতিবতন্ধকতা সৃষ্টি করবেন না।

১১। ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বহন করবেন না।

১২। ক্লান্ত/অসুস্থ/মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালানো হতে বিরত থাকুন।

১৩। সর্বদা বাম লেন চালু রাখুন।

১৪। ইন্টারসেকশন এবং রাস্তায় যাত্রী উঠানো/নামনো হতে বিরত থাকুন।

১৫। ট্রাফিক আইন ও সিগন্যাল জানুন এবং মেনে চলুন।

১৬। বাস-বে/ নির্দিষ্ট স্থান ব্যতীত যত্রতত্র বাস থামিয়ে যাত্রী উঠানামা করবেন না।

১৭। গাড়ি থামানোর ক্ষেত্রে সর্বদা রাস্তার বাম ঘেঁষে থামাবেন।

১৮। ডানে/বামে যাওয়ার ক্ষেত্রে ইন্ডিকেটর ব্যবহার করুন।

মোটরসাইকেল চালকদের প্রতি

১। মোটর সাইকেল চালানোর পূর্বে গাড়ির সমস্ত কাগজপত্র ও ড্রাইডিং লাইসেন্স চেক করে নিন এবং হালনাগাদ কাগজপত্র সাথে রাখুন।

২। মোটর সাইকেলে দুই জনের বেশি আরোহণ করবেন না।

৩। চালক ও আরোহী উভয়েই হেলমেট ব্যবহার করুন।

৪। ফুটপাতে মোটর সাইকেল চালাবেন না।

৫। উল্টো পথে মোটর সাইকেল চালানো থেকে বিরত থাকুন।

৬। গাড়ি চলাচলের নির্ধারিত পথে মোটর সাইকেল পার্ক করে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবেন না।

৭। ট্রাফিক সিগন্যাল অমান্য করে মোটর সাইকেল চালাবেন না।

– ডিএমপি নিউজ

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here