ক্রিকেটের স্বার্থ পরিপন্থী কর্মকাণ্ড চেয়ে চেয়ে দেখব না: পাপন

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাকিব আল হাসান প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে বাংলাদেশ দলের হতাশাজনক পারফরমেন্সের পর ভেবেছিলাম, সবাই খেলার জন্য উন্মুখ থাকবে। অথচ এখন যদি কেউ এমন সিদ্ধান্ত নেয়, সেটা দুঃখজনক। সাকিব ৩ বছর আগেই টেস্ট খেলতে চায়নি।

আজ সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিসিবিতে সভাশেষ সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য কোনো প্লেয়ারই অপহার্য নন। সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম কিংবা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ যেই হোন না কেনো এদেশের ক্রিকেটের স্বার্থ পরিপন্থী কোনো কর্মকাণ্ড কিংবা কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলে তা চেয়ে চেয়ে দেখবে না টাইগার ক্রিকেট প্রশাসন।

বিসিবি সভাপতি বলেন, এটা একেবারে অস্বীকার করার পথ নেই। এর আগেও যে হয়নি তা না। এখন আমাদের মন খুবই পরিস্কার। আমরা কাউকে জোর করে খেলাবো না। যে খেলতে চায় না, খেলবে না। এবং কেউই অপরিহার্য নয়। আমরা চাই সকলে খেলুক, কিন্তু কারো জাতীয় দল ছেড়ে অন্য কোথায় খেলতে যদি ভালো লাগে তাহলে নিশ্চিন্তে যেতে পারে। এই বার্তাটা সবার জন্য। কেবল সাকিব আল হাসানের জন্য না।

তিনি বলেন, এখন থেকে জাতীয় চুক্তি নবায়নের আগেই ক্রিকেটারদের কাছে জানতে চাওয়া হবে কে কোন কোন ফর্মেটে খেলতে আগ্রহী। এবং চুক্তিতে এও উল্লেখ থাকবে কারা কারা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলতে আগ্রহী। এবং কেউ সেখানে খেলতে আগ্রহী হলে ন্যূনতম এক বছর আগে অভিভাবক সংস্থা বিসিবিকে জানাতে হবে। কারোরই চুক্তির বাইরে যাওয়ার সুযোগ থাকবে না। এই চুক্তিতে যে সই করবে তাকে তো আমরা যেতে দেব না।’

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here