কোয়ারেন্টাইনে অভিনেতা কচি খন্দকার

নদীতে ভাসমান লঞ্চের শুটিং থেকে ঢাকায় ফিরেই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন নির্মাতা-অভিনেতা কচি খন্দকার। কচি খন্দকার বলেন, গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরেছি। এখনো পর্যন্ত সুস্থ রয়েছি। কিন্তু পরিবার ও সবার নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছি।

পরিচালক আবু রায়হানের পরবর্তী সিনেমা ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’। এ সিনেমায় গুরত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে দেখা যাবে কচি খন্দকারকে। দেশে করোনা প্রকোপ শুরুর আগে থেকেই সুন্দরবনে সিনেমাটির শুটিং চলছিল। করোনা সংক্রমণ রোধে চলচ্চিত্রের সব ধরনের শুটিং বন্ধ ঘোষণা করা হয়। অবশেষে সিনেমাটির পুরো শুটিং টিম গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরেছে।

অভিনয়শিল্পী কচি খন্দকার, আজাদ আবুল কালাম, সিয়াম আহমেদ, পরীমনিসহ এ ইউনিটে মোট ১১০ জন সদস্য ছিলেন।

ঢাকা লকডাউন করার কারণে এ নগরীর চিত্র পাল্টে গিয়েছে। অনেক দিন পর ঢাকায় ফিরে এ দৃশ্য দেখে অবাক হয়েছেন কচি খন্দকার। তিনি বলেন, ‘সদরঘাটে নামার পর স্তব্ধ হয়ে গেলাম। ঢাকা শহর এক অপরিচিত ঢাকা। এই রকম ঢাকা আগে কোনোদিন দেখিনি। ঢাকা কাঁদছে, বেদনাবিধূর এক হৃদয় নিংড়ানো কান্না। এই কান্না আগে দেখিনি। ঢাকার কান্না সহ্য করা যায় না। এই বেদনা কেটে যাক। ঢাকা হাসুক নির্মল আনন্দে।’

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here