করোনাকালে বৃষ্টির প্রস্তুতি

বৃষ্টিদিনে প্রকৃতির এমন রূপ যতই ভালো লাগুক, বৃষ্টির বিড়ম্বনাও কিন্তু কম নয়। ঘর থেকে বের হতে না পারা, রাস্তাঘাটে কাদাপানি, চলতি পথে হঠাৎ বৃষ্টিতে কাদাজলে একাকার হওয়া ইত্যাদি। তাই বলে বৃষ্টি উপভোগ করবেন না তা কি হয়! বৃষ্টি দিনে বৃষ্টি হোক বা না হোক ঘর থেকে বের হওয়ার আগে কিছু প্রস্তুতি নিয়ে বের হওয়া উচিত।

তাহলে হঠাৎ বৃষ্টিতে বিড়ম্বনা হবে না বরং সবকিছু হয়ে উঠবে উপভোগ্য। এবং একই সাথে এ করোনাকালেও ঘরের বাইরে যেতে কিছু প্রস্তুতি নেয়া জরুরি।

বর্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হল ছাতা। হঠাৎ বৃষ্টি থেকে বাঁচতে এ সময় বৃষ্টি হোক বা না হোক ছাতা ছাড়া বাইরে যাওয়া মোটেই উচিত নয়।

ছাতাতে কাঁধে ঝোলানো ব্যাগটি নিরাপদে রাখা অনেক সময়ই সম্ভব হয় না। তাই এ আবহাওয়ার জন্য বেছে নিন ওয়াটার প্রুফ ব্যাগ। এছাড়া করোনা থেকে মুক্তি পেতে প্রতিদিন ঘরে ফিরে ব্যাগটি অবশ্যই ধুয়ে দিতে হবে।

বৃষ্টির এই সময়টায় সুতি কাপড়ের বদলে আরামদায়ক জর্জেট, সিল্ক কাপড়ের পোশাক পরুন। বৃষ্টিতে ভিজলেও তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

বৃষ্টিতে কাপড় বা চামড়ার জুতা এড়িয়ে চলুন। এছাড়া ফ্ল্যাট স্যান্ডেল আরামদায়ক হলেও এ সময় তা এড়িয়ে চলুন। কারণ ফ্ল্যাট স্যান্ডেল থেকে কাদা ছিটে কাপড় নষ্ট হয়। তাই এ সময়টা একটু উঁচু এবং পা ঢাকা জুতা পরুন। আর করোনা থেকে সুরক্ষিত থাকতেও পা ঢাকা জুতা পরা উচিত।

বাইরে যাওয়ার সময় ছোট প্লাস্টিকের জিপার ব্যাগে মোবাইল, হেডফোনসহ বিভিন্ন গ্যাজেট রাখুন। নয়তো সঙ্গে পলিব্যাগ রাখুন গ্যাজেট রাখার জন্য। এতে যেমন বৃষ্টি থেকে গ্যাজেট ভালো থাকবে তেমনি করোনাভাইরাস থেকেও সুরক্ষিত থাকবে।

বৃষ্টি এবং করোনার হাত থেকে বাঁচতে প্রয়োজনীয় কসমেটিকস, রুমাল, টিস্যু, অতিরিক্ত একজোড়া হ্যান্ড গ্লভস, মাস্ক, স্যানেটাইজার, অ্যালকোহল ওয়াইপস ইত্যাদি সঙ্গে থাকা ব্যাগটিতে রাখুন।

বাইরে গেলেও চেষ্টা করুন ৩০ মিনিট পরপর সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার। বাইরে থেকে ঘরে ফিরেও একঘণ্টা পরপর হাত ধোয়ার অভ্যাস করুন।

বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ বিভিন্ন ধরনের গণপরিবহনে যদি উঠতেই হয় তবে প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ব্যবস্থা নিন। যদি সম্ভব গাড়ির সিটে জীবাণুনাশক স্প্রে করে ল্যাগেজ রাখুন এবং নিজে বসুন।

বাইরে গেলে আংটি, চুড়ি, ঘড়ি, ব্রেসলেট ইত্যাদি এক্সসরিজ এখন ব্যবহার না করা ভালো। তবে যদি ব্যবহার করতেই হয়, এসব অনুষঙ্গগুলোও জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করুন। বৃষ্টিতে হাতের ঘড়িটি সুরক্ষিত রাখতে ওয়াটার প্রুফ ঘড়ি পরুন।

বর্ষায় হাত-পায়ে ইনফেকশন, চুলকানিসহ বিভিন্ন ধরনের চর্মরোগ এবং করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে বাইরে থেকে ঘরে ফিরে সরাসরি গোসলে যান। গোসলে কুসুম গরম পানি ব্যবহার করতে চেষ্টা করুন এবং পরিধেয় পোশাক একঘণ্টা ডিটারজেন্টে ভিজিয়ে রেখে ধুয়ে দিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here