ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল ঢাকায়

টেস্ট এবং ওয়ানডে সিরিজ খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল এখন ঢাকায়। ১০ জানুয়ারি, রোববার সকালে ঢাকায় এসে পৌছেছে উইন্ডিজ ক্রিকেট দল। করোনা কালের এই সময় প্রথম কোন বিদেশি দল হিসেবে ক্রিকেট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে এসেছে। মাসব্যাপী এই সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তিনটি ওয়ানডে এবং দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে। ঢাকা ও চট্টগ্রামে হবে এই ক্রিকেট সিরিজ।

আজ সকাল সাড়ে ১০টায় হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌঁছায় ৩৮ সদস্যের ক্যারিবীয় দলটি।

বিমানবন্দর থেকে সোজা চলে যায় তারা সোনারগাঁ হোটেলে। যেখানে করোনার কারণে তৈরি করা জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকবে ক্যারিবীয় ক্রিকেট দল। মোট তিনদিন কোয়ারেন্টাইন করতে হবে ক্যারিবীয় দলকে। হোটেল থেকেই তারা বের হতে পারবে না। এরপর ১৪ জানুয়ারি অনুশীলন করতে মাঠে নামতে পারবে সফরকারীরা।

জানা গেছে, ওয়ানডে এবং টেস্ট দলের সবাই একসঙ্গে চলে এসেছে ঢাকায়। খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ এবং কর্মকর্তাসহ পুরো বহরের সদস্যসংখ্যা ৩৮জন। তবে ওয়ানডে সিরিজ শেষ হওয়ার পর ১১ জন চলে যাবেন। টেস্ট সিরিজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ২৭জন থাকবেন ঢাকায়।

বিসিবি মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছেন, ১৮ তারিখ বিকেএসপিতে যে অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের, সেটি বাংলাদেশের কোনো দলের বিপক্ষে নয়। তারা নিজেরা নিজেরাই এই প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলবে।

বিসিবি থেকে আরও একটি তথ্য জানা গেছে। সেটি হচ্ছে, বিসিবি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডকে করোনা মোকাবেলায় যে প্রটোকলের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তা তদারক করার জন্য উচ্ছ ক্ষমতাসম্পন্ন একজন বিশেষজ্ঞ পাঠিয়েছে দলের সঙ্গে। যিনি করোনা প্রটোকলের পুরো বিষয়টি দেখভাল করবেন এবং তার ক্ষমতা রয়েছে- বিনা নোটিশেই পুরো দলকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার।

এ কারণে, বিসিবির ক্রিকেট ম্যানজোর সাব্বির খান, মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমামসহ বাংলাদেশ টিম সংশ্লিষ্ট প্রতিটি ব্যক্তিই সোনারগাঁ হোটেলে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকবেন। বাইরের কেউ ওই সময় সেই বলয়ের মধ্যে প্রবেশ করতে পারবে না। যাতে করে কোনোভাবেই করোনা প্রটোকল ভেঙে না পড়ে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here