কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। কি মর্মান্তিক ঘটনা! আমার রক্তক্ষরণ হয়েছে। আজ শনিবার সকালে গাজীপুরে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে ‘কেন্দ্রীয় গবেষণা পর্যালোচনা ও কর্মসূচি প্রণয়ন কর্মশালা’র অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, দেশের উন্নয়ন ও দারিদ্র বিমোচনের সবচেয়ে বড় ভূমিকা কৃষি। যদিও অতীতে দেশের অর্থনীতিতে কৃষির অবদান ছিলো প্রায় ৬০ ভাগ। সেটি ক্রমান্বয়ে কমে এখন ১৪ থেকে ১৫ ভাগে নেমে এসেছে। তার অর্থ এই নয়, যে কৃষির গুরুত্ব কমে গেছে। এখনো অর্থনীতি, সাংস্কৃতি ও সমাজনীতি কৃষিকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত হয়। তাই আগামীতে কৃষি দেশের অর্থনীতিতে সবচেয়ে গুরুত্ব নিয়ে অবস্থান করবে।

এ সময় ছাত্র রাজনীতি নিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ছাত্র রাজনীতি মৌলিক অধিকার। মানুষের কথা বলার অধিকার। আইন করে ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করা যাবে না।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. আবুল কালাম আযাদের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান এমপি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নাসিরুজ্জামান।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here