সৌন্দর্য, অভিনয় দক্ষতা আর মানবিকতায় অনেকের থেকে এগিয়ে তিনি। উজ্জ্বলতায় ভক্তদের কাছে এখনও কিশোরী অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত। তিনি ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা পূর্ণিমা। জন্ম ১৯৮১ সালের ১১ জুলাই বাংলাদেশের চট্টগ্রামে। আজ তার জন্মদিন।

মেধা ও সৌন্দর্য আর অভিনয় দক্ষতা দিয়ে এক সময়ের ‘দিলারা হানিফ’ ও ‘রিতা’ থেকে তিনি হয়েছেন আজকের পূর্ণিমা। তার এই যাত্রা দীর্ঘদিনের। ১৯৯৭ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্র জগতে তার পদার্পণ। এরপর পর্যায়ক্রমে নিঃশ্বাসে তুমি বিশ্বাসে তুমি, হৃদয়ের কথা, ধোঁকা, শিকারী, স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ, মেঘের পরে মেঘ, টাকা, শাস্তি, মনের সাথে যুদ্ধ, আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা, পরাণ যায় জ্বলিয়া রে, মায়ের জন্য পাগল, ওরা আমাকে ভাল হতে দিল না’সহ উপহার দিয়েছেন অনেক জনপ্রিয় সিনেমা।

অভিনয়ের জন্যে তিনি পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, একাধিক বার মেরিল প্রথম আলো পুরস্কারসহ বেশ কিছু পুরস্কার।

বর্তমানে স্বামী, সন্তান ও সংসার নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন অভিনেত্রী। ২০০৭ সালে পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদকে তিনি বিয়ে করেন। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিলে কন্যা সন্তানের মা হন। তার মেয়ের নাম আরশিয়া উমাইজা।

২০১৪ সালের পর থেকে চলচ্চিত্রে অনিয়মিত হন তিনি। সন্তান ও সংসার নিয়ে কিছুটা ব্যস্ত ছিলেন। এরপর ধীরে ধীরে টিভি নাটক ও বিজ্ঞাপনে নিয়মিত দেখা যায়। এখন টেলিভিশন নাটক ও অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় দক্ষতার সঙ্গে কাজ করছেন অভিনেত্রী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ সক্রিয় অভিনেত্রী। প্রতিনিয়ত নিজের কার্যক্রমের আপডেট দেন তিনি। কখনও স্টেজে আবার কখনও বৃদ্ধা মায়েদের কাছে ছুটে চলছেন তিনি। তার প্রায় প্রতিটি কার্যক্রম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও কল্যাণে পৌঁছে যায় ভক্তদের কাছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here