অনলাইনে অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা ও ভাইভা নেবে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ করোনাকালে অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা (ইন্টারনাল অ্যাসেসমেন্ট) ও ভাইভা অনলাইনে গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী ১৫ জুন থেকে অনলাইন পদ্ধতিতে এই অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা ও ভাইভা শুরু হবে। তবে ফাইনাল পরীক্ষা কিভাবে কোন পদ্ধতিতে গ্রহণ করা হবে তা চূড়ান্ত করার জন্য ৯ সদস্যের ‘ফাইনাল পরীক্ষা কমিটি’ গঠন করা হয়েছে।

এই কমিটি ফাইনাল পরীক্ষা নেয়ার ব্যাপারে তাদের চূড়ান্ত প্রস্তাবনা আগামী ৩০ জুন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জমা দেবেন। বৃহস্পতিবার বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের ৩৩তম সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. সুব্রত কুমার দাস জানান, একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় আগামী ১৫ জুন থেকে ৪০ নম্বরের অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা অনলাইনে শুরু হবে। অনলাইনে ভাইভাও নেয়া হবে দ্রুত সময়ের মধ্যে। কোন প্রক্রিয়ায় ফাইনাল পরীক্ষা নেয়া যায় তা নির্ধারণ করার জন্য সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মুহসীন উদ্দীনকে আহ্বায়ক ও আইটি ডিরেক্টর সহকারী অধ্যাপক রাহাত হোসাইন ফয়সালকে সদস্য সচিব করে ৯ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার দাস, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক ড. মানজুর আহমেদ, সামাজিক বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক ড. তারেক মাহমুদ আবির, ইতিহাস ও সভ্যতা বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক ড. আব্দুল বাতেন চৌধুরী, আইন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক সাদেকুর রহমান, একাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ রাকিবুল ইসলাম এবং সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সাজ্জাদুল্লাহ মোহাম্মদ ফয়সাল।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষার্থীর যদি অনলাইনে পরীক্ষা দেয়ার মতো তথ্য প্রযুক্তি না থাকে কিংবা কেউ যদি অনলাইনে পরীক্ষা দিতে না চায় তাদের বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মুহসীন উদ্দীন বলেন, আগামী ১৫ জুন অনলাইনে অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা শুরুর আগেই ৯ সদস্যের ‘ফাইনাল পরীক্ষা কমিটি’ এ ব্যাপারে নীতিমালা প্রণয়ন করবে। যা পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের জানিয়ে দেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here